সংগীতজ্ঞ আলাউদ্দিন আলীর প্রয়ানে আমরা শোকাহত

বাংলাদেশের জনপ্রিয় সুরকার আলাউদ্দীন আলীর মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। আজ রবিবার ৯ আগস্ট বিকেলে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন।

আলাউদ্দীন আলী একই সাথে সুরকার, গীতিকার ও সংগীত পরিচালক ছিলেন। ষাটের দশকে চলচ্চিত্রে বেহালা বাদক হিসেবে কাজ শুরু করেন। এরপর সত্তরের দশক থেকে সংগীত পরিচালনায় বিশিষ্ট হয়ে ওঠেন তিনি। ১৯৭৫ সালে প্রথম যে-ছবির সংগীত পরিচালনা করেন তা হলো ‘সন্ধিক্ষণ’। এরপর ১৯৭৭ সনে শিখরে পৌঁছান ‘গোলাপি এখন ট্রেনে’ আর ‘ফকির মজনু শাহ’ চলচ্চিত্রে সংগীত পরিচালনা করে। তাঁর সুর করা গান বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করে। চলচ্চিত্র, বেতার, টেলিভিশন মিলে প্রায় পাঁচ হাজার গান তিনি রচনা ও গানে সুর সংযোজন করেছেন, যার মধ্যে   ‘একবার যদি কেউ ভালবাসত’, ‘যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়’, ‘হয় যদি বদনাম হোক আরও’, ‘আছেন আমার মোক্তার, আছেন আমার ব্যারিস্টার’, ‘সুখে থাকো ও আমার নন্দিনী’, ‘আমায় গেঁথে দাওনা মাগো একটা পলাশ ফুলের মালা’ বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

আলাউদ্দীন আলী আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। আধুনিক বাংলা গানের সুর-বৈচিত্র্য, বিবর্তন ও সৃজন-উৎকর্ষে তাঁর নাম চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

Enter your keyword